খালেদা জিয়া অনেককে বিধবা করেছে

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করায় বিএনপির নেতাদের উদ্দেশে সংসদে আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস বলেছেন, তিনি কি রানী ভিক্টোরিয়া হয়ে গেছেন যে, তাকে আইনের ঊর্ধ্বে রাখা হবে? এতিমের টাকা মেরে খেয়েছেন, সে জন্য সাজা হয়েছে। তিনি বলেন, নিম্ন আদালতে যা সাজা হয়েছিল, উচ্চ আদালত তা বাড়িয়ে দিয়েছেন। খালেদা জিয়া বহু মায়ের কোল খালি করেছেন, অনেককে বিধবা করেছেন। রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন মৃণাল কান্তি দাস।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসীরাই ক্ষমতায় ও বিরোধী দলে থাকবে, আর পাকিস্তানে বিশ্বাসীদের বাংলাদেশে ঠাঁই হবে না। পাকিস্তানপন্থিদের আর কোনদিন এ দেশের মানুষ বিশ্বাস করবে না। যারা পাকিস্তানে বিশ্বাস করে, পাকিস্তানিদের পা চাটে তাদের ঠাঁই বাংলাদেশে হবে না। এ দেশের মানুষ তাদের আর বিশ্বাস করবে বলে আমি মনে করি না।

মৃণাল কান্তি দাস আরও বলেন, বাংলাদেশের অনেক মায়ের কোল খালি করেছে খালেদা জিয়া, অনেককে বিধবা করেছেন। আহসানউল্লাহ মাস্টার, শাহ এ এস এম কিবরিয়া, মানিক সাহা, হুমায়ুন কবির বালু, শামসুর রহমানসহ ২১ হাজার নেতা-কর্মীকে হত্যা করেছেন। সেই খালেদার মুক্তি চাওয়া হয় সংসদে। অত্যাচারী নিষ্ঠুর মানুষ হিসেবে যিনি পরিচিত তার জন্য কেন এত মায়াকান্না? এতিমের টাকা লুটপাট করে খেয়ে যার সাজা হয়েছে, উচ্চ আদালতে তার সাজা দ্বিগুণ হয়েছে। তাকে কেন মুক্তি দিতে হবে?

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, এরা আইনের প্রয়োগ চায় না। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হোক তা তারা চায় না। খালেদা জিয়ার পুত্র তারেক রহমানের প্রেসক্রিপশনে সারা দেশে অত্যাচার, নির্যাতন, হত্যা হয়। দেশের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দেখেন এখনও মানুষ কী বলে। এদের নিষ্ঠুরতা, পৈশাচিকতার শিকার মানুষ এখনও যন্ত্রণায় ভুগছে, এখনও কাঁদে। লন্ডনে বসে তারেক রহমান দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। সংসদে তার প্রসংশা করা হয়। তাদের এই আচরণে সভ্যতা লজ্জা পায়।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here