কাশ্মীরের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে জায়রার পোস্ট

আবারও কাশ্মীরিদের নিয়ে উৎকন্ঠা প্রকাশ করলেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিম। কেন কাশ্মীরীদের উপরেই এত নিষেধাজ্ঞা থাকবে সরকারকে প্রশ্ন জায়রার। নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় সমস্ত রাগ উগরে দিলেন অভিনেত্রী। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ায় ঝড় উঠেছে।

৩৭০ ধারা প্রয়োগের পর থেকেই কাশ্মীরে অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। ইন্টারনেট পরিষেবা থেকে যোগাযোগ ব্যবস্থা সমস্ত কিছুই ব্যাহত হয়েছে। এখনও উপত্যকার কিছু কিছু এলাকায় জারি রয়েছে কারফিউ। দিনের পর দিন উপত্যকায় বাড়ছে হতাশা আর দুঃখ। আর এই নিয়েই এবার প্রশ্ন তুলেছেন জায়রা। কেন কাশ্মীরীদের উপরেই এত নিষেধাজ্ঞা থাকবে? কেন তারা স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারবেন না? নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে জায়রা লেখেন, ‘কাশ্মীরিদের কন্ঠরোধ করা, তাদের বাকস্বাধীনতা খর্ব করা, যখন তখন তাদের নিয়মের বেড়াজালে বেঁধে দেয়া হয়। কিন্তু কেন?’ প্রশাসনের বিরুদ্ধে তার অভিযোগ, ‘‌কাশ্মীর কিন্তু এখনও সঙ্কটে রয়েছে, আশা–নিরাশার মধ্যে ঝুলে রয়েছে। কর্তৃপক্ষ সন্দেহ নিরসন তো করেন না বরং ক্ষমতা প্রয়োগ করে আমাদের কন্ঠরোধ করে চলেছে। যত দিন যাচ্ছে একের পর এক নিয়ম চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে কাশ্মীরিদের উপর। যাক ফলে স্বাভাবিক জীবনযাপনও ব্যাহত হচ্ছে। কেন এইরকম পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে এর উত্তর এখন অধরা।’ জায়রা আরও লেখেন, ‘আপনারাই বলুন এমন একটা পরিস্থিতিতে কীভাবে বাঁচব আমরা, যেখানে আমাদের জীবন ও কাজকে নিয়ন্ত্রণে রাখা হয়, চুপ করিয়ে রেখে দেয়া হয়। আমাদের আওয়াজকে নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে, এটা ঠিক? আমাদের বাক স্বাধীনতা খর্ব করা হচ্ছে, এটা কি ঠিক? আমাদের কিছু বলতে দেওয়া হচ্ছে না কেন? আমাদের শুধুই চুপ করিয়ে দেয়া হচ্ছে। আর সাধারণ মানুষের মতো কেন আমরা বাঁচতে পারি না। প্রত্যেকটা মুহূর্ত সংগ্রামের মধ্য দিয়ে কাটছে, প্রত্যেকবারই কেন কাশ্মীরিদের প্রমাণ দিতে হবে। আমাদের কি মন বলে কিছু নেই। কেন কাশ্মীরিদের জীবন এমন তীব্র সঙ্কটাপন্ন হবে, অবরোধ ও অশান্তি তাদের জীবনের স্বাভাবিক ছন্দকে ব্যহত করছে।’

প্রসঙ্গত, বলিউড থেকে নিজের অভিনয় থেকে গত বছরই বিদায় নিয়েছেন বলিউডের প্রতিভাবান অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিম। তার জন্ম ও বেড়ে উঠা কাশ্মীরে। বর্তমানে তিনিও সেখানে অবরুদ্ধ রয়েছেন। এর আগেও কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন তিনি। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ায় ঝড় উঠেছে। সূত্র: ইকনোমিক টাইমস।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here