বিয়ের চার মাসেই সন্তান প্রসব, শিক্ষিকা বহিষ্কার

বিয়ের চার মাসের মধ্যেই মা হওয়ার অভিযোগে বহিষ্কার করা হল প্রাইমারি স্কুলের এক শিক্ষিকাকে। ঘটনাটি ঘটে ভারতের কেরালার মালাপ্পুরম জেলার কোট্টাকাল শহরে।

মাতৃত্বকালীন ছুটির পরে স্কুলে এলে পুনরায় তাকে শিক্ষিকা হিসাবে নিয়োগ করতে অস্বীকার করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। তারপরেই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন ওই মহিলা।

এমনকি অভিভাবক–শিক্ষক মিটিংয়েও তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কটূক্তি করা হয়, অভিযোগ করেছেন শিক্ষিকা। কোট্টাকাল থানার এসআই সন্ধ্যা দেবী জানিয়েছেন, ‌শিক্ষিকার অভিযোগের ভিত্তিতে স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আমরা তদন্ত শুরু করেছি।

গত পাঁচ বছর ধরে ওই স্কুলেই শিক্ষকতার কাজ করছেন তিনি। প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের প্রক্রিয়াতে একটু দেরি হওয়ায় বিয়ের আগেই দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গে থাকতে শুরু করেন তিনি। তারপর ২০১৮ সালের জুন মাসে দ্বিতীয় বিয়ের পর স্কুলে মাতৃত্বকালীন ছুটির আবেদন করেন।
২০১৯–র জানুয়ারি মাসে মাতৃত্বকালীন ছুটির পরে তিনি স্কুলে এলে ঘটনাটি ঘটে। শিশু অধিকার কমিশনেও অভিযোগ দায়ের করেন ওই শিক্ষিকা। শিক্ষিকার অভিযোগের ভিত্তিতে শিক্ষা দপ্তরের সহকারি অধিকর্তা একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন এবং ওই মহিলাকে পুনরায় শিক্ষিকা হিসাবে নিয়োগের সরকারি নির্দেশও জারি করেন। সেই নির্দেশও মানেনি স্কুল কর্তৃপক্ষ।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here