স্বামীর পরকীয়া, শ্বশুরবাড়িতে ডেকে যা করলেন স্ত্রী

ঢাকা : চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘ভোরে রায়হান নামের এক যুবক হাসপাতালে কাটা গোপনাঙ্গ নিয়ে আসেন’মাদারীপুর সদর উপজেলার পরকীয়ার জের ধরে এক নারীর বিরুদ্ধে স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পাঁচখোলা ইউনিয়নের মহিষেরচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, দুই বছর আগে মহিষেরচর গ্রামের ইউসুফ সরদারের মেয়ে কুনসুম আক্তারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে বিয়ে হয় ফরিদপুরের জমির উদ্দিনের ছেলে মো. রায়হানের। বিয়ের কিছুদিন পরে রায়হান জানতে পারেন, অন্য একজনের সঙ্গে তার স্ত্রী কুনসুমের পরকীয়ার সম্পর্ক আছে।

এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। পরে শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ফরিদপুর থেকে রায়হানকে শ্বশুরবাড়ি ডেকে নিয়ে যান কুনসুম। রাতে দুজন একসঙ্গে ঘুমাতেও যান। রাত সাড়ে ৩টার দিকে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় রায়হানের গোপনাঙ্গের বেশির ভাগ অংশ কেটে দেন কুনসুম। তাকে সঙ্গে সঙ্গে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রায়হানকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমান লেলিন বলেন, “ভোরে রায়হান নামের এক যুবক হাসপাতালে কাটা গোপনাঙ্গ নিয়ে আসেন। আমরা তার তাৎক্ষনিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করে দেই। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।”

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সওগাতুল আলম বলেন, “এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। যদি ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি অভিযোগ দেয়, তাহলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।”

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here