বিকৃত যৌন অপরাধ, ৩০ বছরের জেল নারীর

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি করার দায়ে এক নারীকে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন টেক্সাসের ফেডারেল কোর্ট। গত মঙ্গলবার এই দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। বলা হচ্ছে, তিনি এক ৯ বছর বয়সী শিশুকে তার স্বামীর সঙ্গে যৌনমিলন করতে বাধ্য করেন। সেই ঘটনার ভিডিও ধরাণ করেন অভিযুক্ত ওই নারী।

বুনি কাউন্টি (মিসৌরি) শেরিফের অফিস, ডালাস (টেক্সাস) পুলিশ বিভাগ এবং টেক্সাসের জননিরাপত্তা বিভাগের সহায়তায় এই তদন্তটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টস’র হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ইনভেস্টিগেশনস (এইচএসআই) পরিচালনা করে। তদন্ত শেষে গত বছরের অক্টোবর মাসে ৩৯ বছর বয়সী ডন গ্রিনউডকে সর্বোচ্চ সাজা দেওয়ার আবেদন করা হয়েছিল।

আদালতের নথি অনুসারে জানা যায়, এই দম্পতির বাড়িতে থাকতেন ওই কিশোরী। পরে একদিন গ্রিনউড তার স্বামী শন গ্রিনউডের সঙ্গে যৌনমিলনে করতে বাধ্য করেন ওই কিশোরীকে। গ্রিনউড সেল ফোনে এই ঘটনার একটি ভিডিও ক্লিপও তৈরি করে রাখেন। এরপর এই ঘটনায় প্রকাশ পায় ফেসবুকের মাধ্যমে। শন গ্রিনউড একদিন তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ওই ভিডিও শেয়ার করেন। পরে দেশটির ন্যাশনাল সেন্টার ফর মিসিং অ্যান্ড অ্যাক্সপ্লয়েটেড চিলড্রেন দপ্তরে নোটিশ করে ফেসবুক।

এই ঘটনার তদন্তে নেমে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ইনভেস্টিগেশনস (এইচএসআই) শন গ্রিনউডের ফোন জব্দ করে। তারপর ফোনে ওই কিশোরীর ভিডিওটি খুঁজে পায়। ওই কিশোরীকেও তাত্ক্ষণিকভাবে বাড়ি থেকে সরিয়ে অভিভাবকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল।

গ্রিনউডকে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে দোষী সাব্যস্ত করা হয় এবং ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে তাকে সাজা দেওয়া হবে। সরকারের পক্ষ হয়ে ওই মামালটি লড়েন সহকারী মার্কিন অ্যাটর্নি ক্যামিল।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here